অস্ত্র নিয়ে মহড়ার অভিযোগে প্রার্থিতা হারালেন আফতাব

লেখক:
প্রকাশ: ১০ মাস আগে

আসন্ন সিলেট সিটি কর্পোরেশন (সিসিক) নির্বাচনে ৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে আফতাব হোসেন খানের প্রার্থিতা বাতিল করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। বুধবার (১৪ জুন) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ইসি সচিব মো. জাহাংগীর আলম।

তিনি বলেন, ‘আফতাব হোসেন খানের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বীর বাসার সামনে অস্ত্র নিয়ে মহড়ার অভিযোগ তদন্ত করে এর সত্যতা পাওয়া গিয়েছে। বুধবার এ বিষয়ে ইসির শুনানি শেষে তার প্রার্থিতা বাতিল করে নির্বাচন কমিশন।’

এর আগে, গত সোমবার নির্বাচন কমিশনের জনসংযোগ শাখার পরিচালক মো. শরিফুল আলম জানান, সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী আফতাব হোসেন খানের (ঘুড়ি প্রতীক) বিরুদ্ধে অপর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর বাড়ির সামনে সশস্ত্র মহড়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ ও ছবি বিভিন্ন প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক মিডিয়াসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারিত হয়েছে। তাছাড়া, ওই ওয়ার্ডের কাউন্সিল প্রার্থী সায়ীদ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ (লাটিম প্রতীক) এ বিষয়ে কমিশন বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

পরবর্তীতে আফতাব হোসেনকে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন আচরণ বিধি লঙ্ঘনের দায়ে কাউন্সিলর প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিল অথবা তার বিরুদ্ধে কেন শাস্তি মূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে না সে বিষয়ে লিখিত বক্তব্যসহ নির্বাচন কমিশনে ব্যক্তিগতভাবে উপস্থিত হয়ে ব্যাখ্যার জন্য নির্দেশনা দেয় ইসি। বুধবার নোটিশের জবাব দেন আফতাব। পরে তার প্রার্থিতা বাতিল করে ইসি।

উল্লেখ্য, আগামী ২১ জুন সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এতে ৭ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে আফতাব, সায়ীদ মো. আবদুল্লাহ ও মো. জাহিদ খান সায়েক প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন। আফতাবের প্রার্থিতা বাতিল করায় এখন দুজন প্রতিদ্বন্দ্বী রইলেন।