সাতক্ষীরা জেলা কিসের জন্য বিখ্যাত

লেখক:
প্রকাশ: ১ বছর আগে
সাতক্ষীরা জেলা কিসের জন্য বিখ্যাত । Satkhira kiser jonno bikkhato

সাতক্ষীরা জেলা কিসের জন্য বিখ্যাত

সাতক্ষীরা বাংলাদেশের খুলনা বিভাগের অন্তর্ভুক্ত একটি প্রশাসনিক এলাকা। ভৌগলিক অবস্থানগত কারণে সাতক্ষীরা বাংলাদেশের অত্যন্ত সুপরিচিত একটি জেলা। সাতক্ষীরা পেরোলে কেবল অথৈ সাগর। বলতে গেলে এটি পৃথিবীর ভূভাগের শেষ সীমান। সে কারণে অনেক সময় সাতক্ষীরা বিভিন্ন ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগের সম্মুখীন হয়ে থাকে। 

 

সাতক্ষীরা জেলা কিসের জন্য বিখ্যাত । Satkhira kiser jonno bikkhato

 

সাতক্ষীরার রয়েছে একটি প্রসিদ্ধ ইতিহাস। এখানে জন্মগ্রহণ করেছেন বাংলাদেশের তুমুল জনপ্রিয় কিছু ব্যক্তিত্ব। যারা বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে প্রতিষ্ঠিত করেছে। 

এবং আজকের আর্টিকেলে আমরা জানতে চলেছি সাতক্ষীরা জেলা কিসের জন্য বিখ্যাত সে সম্পর্কে।  

সাতক্ষীরা জেলার ইতিহাস

 

সাতক্ষীরা জেলার ইতিহাস

 

১৭৭২ সালে নদীয়ার শাসনকর্তা রাজা কৃষ্ণচন্দ্রের একজন রাজ কর্মচারী বিষ্ণুরাম রায় চক্রবর্তী চিরস্থায়ী বন্দোবস্তের সময় তৎকালীন সাতক্ষীরা জেলার কিনে নেন। তিনি এই জায়গা নামকরণ করেন সাতঘড়িয়া। মূলত সাতঘড়িয়া নাম থেকেই অত্র এলাকার নামকরণ করা হয়েছে সাতক্ষীরা। 

 

১৮৬১ সালে মোট সাতটি জেলা নিয়ে যশোর জেলার অন্তর্ভুক্ত করে সাতক্ষীরা কে একটি মহকুমাতে পরিণত করা হয়। 

১৮৬৩ সালে এটিকে খুলনা জেলার অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ১৮৮২ সালে পুনরায় এটিকে সাতক্ষীরা জেলার অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল। 

 

১৯৮৪ সালে হোসেন মোহাম্মদ এরশাদের সময়কালে যখন মহাকুমা প্রথা বিলুপ্ত হতে শুরু করে তখন সাতক্ষীরা একটি জেলায় পরিণত হয়। 

 

সাতক্ষীরা জেলার নামকরণ নিয়ে বেশ কিছু মিথ প্রচলিত রয়েছে স্থানীয় মানুষদের ভেতরে। অনেকে বলে থাকেন, একদা তিনজন পর্যটক সাতক্ষীরা ভ্রমণ করতে এসে শখের বসে কি রান্না করেছিল। সেই সাতজন পর্যটক এর মধ্যে দুইজন ছিল স্থানীয় এবং বাকি পাঁচজন ছিল ভিনদেশী। এক্ষেত্রে তারা স্থানীয়দের সহযোগিতা চেয়েছিল। 

 

স্থানীয়দের সহযোগিতায় তারা ক্ষীর রান্না করে এবং অত্যন্ত তৃপ্তির সাথে  সেই ক্ষীর উপভোগ করে। মূলত তাদের রান্না করা সেই ক্ষীরের সাথে “আ” যুক্ত হয়ে অত্র এলাকার নামকরণ করা হয় সাতক্ষীরা। যেহেতু সেই ক্ষীর সাতজন মিলে খেয়েছিল সে কারণেই মূলত এ ধরনের নামকরণ। 

সাতক্ষীরা জেলা কিসের জন্য বিখ্যাত

 

সাতক্ষীরা জেলা কিসের জন্য বিখ্যাত

 

সাতক্ষীরা জেলার বিখ্যাত হওয়ার অন্যতম কারণ হলো এই ছেলে জন্মগ্রহণকারী বিশেষ ব্যক্তিত্বসমূহ। যাদের মধ্যে সাবিনা ইয়াসমিন, মুস্তাফিজুর রহমান এবং সৌম্য সরকার অন্যতম। এছাড়া সাতক্ষীরা চিংড়ির এর জন্য বিখ্যাত দেশ জুড়ে।

 

সাতক্ষীরা জেলায় প্রচুর পরিমাণে চিংড়ির হ্যাচারি রয়েছে। প্রতিবছর সাতক্ষীরা জেলাতে প্রায় দুই হাজার মেট্রিক টন চিংড়ি চাষ হয়ে থাকে। এই চিংড়ি দেশের বিভিন্ন প্রান্তে পৌঁছে দেন হ্যাচারী মালিকরা। সে কারণে সাতক্ষীরা জেলা চিংড়ি উৎপাদনের জন্য বেশ প্রসিদ্ধ।

সাতক্ষীরা জেলার বিখ্যাত স্থান

সাতক্ষীরা জেলার বিখ্যাত স্থান

সাতক্ষীরা জেলায় যে কয়টি দর্শনীয় স্থান রয়েছে তার মধ্যে অন্যতম স্থানগুলো নিচে উল্লেখ করা হলো:

 

যশোরেশ্বরী মন্দির

 

হিন্দু স্থাপত্য কলার মধ্যে যশোরেশ্বরী মন্দির অন্যতম। এটি সাতক্ষীরা জেলার ঈশ্বরেশ্বরী উপজেলায় অবস্থিত। প্রতিবছর দুর্গাপূজার সময় ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে মানুষজন এই মন্দিরের পূজা উপভোগ করে থাকেন। 

 

তেতুলিয়া জামে মসজিদ

 

ব্রিটিশ শাসনামলে তেতুলিয়া জামে মসজিদ ছিল বাংলাদেশের অন্যতম একটি স্থাপত্য কলা। কেননা সেই সময় এই মসজিদটি অনেক দৃঢ় মেটেরিয়াল ব্যবহার করে তৈরি করা হয়েছিল। যার ফলে এখনো টিকে রয়েছে এই জামে মসজিদটি। প্রতিবছর অত্র এলাকার সবচেয়ে বড় ঈদের জামাত এখানে অনুষ্ঠিত হয়। 

 

জোড়া শিব মন্দির

 

জোড়া শিব মন্দির বাংলাদেশের একটি প্রত্নতাত্ত্বিক স্থান হিসেবে পরিচিত। এখান থেকে বেশ কয়েকটি প্রাগৈতিহাসিক যুগের মূর্তি উদ্ধার করা হয়েছে। তার পাশাপাশি রয়েছে দুটি শিব মন্দির। 

 

সোনা বাড়িয়া মঠবাড়ি মন্দির

 

সাতক্ষীরার সবচেয়ে বড় দুর্গাপূজা এখানে অনুষ্ঠিত হয়। দুর্গাপূজার সময় বিভিন্ন থিমে সাজানো হয় মন্ডপ গুলোকে। দৃষ্টিনন্দন এই মন্দির হিন্দু স্থাপত্যকলার উৎকৃষ্ট উদাহরণ। 

সাতক্ষীরা জেলার বিখ্যাত খাবার

 

সাতক্ষীরা জেলার বিখ্যাত খাবার

 

সাতক্ষীরা জেলায় আম ও ওলের চাষ হয়ে থাকে। এখানে প্রচুর পরিমাণে ওদের চাষ হয়ে থাকে যেগুলো সাতক্ষীরা থেকে সমগ্র দেশে বিক্রি করা হয়। এছাড়াও এখানে বেশ কিছু বড়-বড় আম বাগান রয়েছে ।

 

সাতক্ষীরার ঘোল বেশ বিখ্যাত। এখানে ছাগলের দুধ দিয়ে ঘোল তৈরি করা হয়। ঘোল বা মাঠা সাতক্ষীরার উৎকৃষ্ট একটি পানীয়। 

 

সাতক্ষীরার যে কোন উৎসব অনুষ্ঠানে ঘোল থাকতেই হবে। সাতক্ষীরায় বিয়ে বাড়িতে বরপক্ষের ঘোল নিয়ে আসা বাধ্যতামূলক। এটি সাতক্ষীরার ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির মধ্যে ঢুকে পড়েছে। 

 

তবে সাতক্ষীরা সবচেয়ে বেশি বিখ্যাত চিংড়ি মাছ চাষ এবং চিংড়ি মাছের বিভিন্ন পদের কারণে। এখনকার স্থানীয়রা চিংড়ি মাছ দিয়ে বাহারি রকমের পদ রান্না করে থাকেন। যা খেতে সুস্বাদু ও অতুলনীয় ।

সাতক্ষীরা জেলার বিখ্যাত ব্যক্তি

 

সাতক্ষীরা জেলার বিখ্যাত ব্যক্তি

 

মোহাম্মদ ওয়াজেদ আলী

 

মোঃ ওয়াজেদ আলী বাংলাদেশের একজন খ্যাতনামা সাহিত্যিক ও প্রাবন্ধিক। তিনি ১৯৪৩ সালের সাতক্ষীরা জেলা জন্মগ্রহণ করেন। তার সাহিত্য কর্মের মধ্যে মরুভাস্কর সবচেয়ে জনপ্রিয়। 

 

সিকান্দার আবু জাফর

 

সিকান্দার আবু জাফর বাংলাদেশের একজন কালজয়ী সাহিত্যিক। ১৯১৮ সালের জন্মগ্রহণ করেন সাতক্ষীরা জেলায়। তিনি সমকাল পত্রিকার সম্পাদক হিসেবে সবচেয়ে বেশি খ্যাতি অর্জন করেছেন। বিশেষ করে পাকিস্তান সরকারের অমানবিক শোষণ এবং বৈষম্য নিয়ে বরাবরই লেখালেখি হয়েছে সমকাল পত্রিকায়। 

১৯৭৫ সালের ৫ ই আগস্ট, অর্থাৎ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যার মাত্র ১০ দিন আগে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। 

 

সাবিনা ইয়াসমিন

 

বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় কন্ঠশিল্পী সাবিনা ইয়াসমিন জন্মগ্রহণ করেন সাতক্ষীরা জেলায়। ছোটবেলায় থেকে গানের প্রতি ছিল অনুরাগ। আগ্রহ ও প্রচেষ্টায় তিনি তার কন্ঠের মাধ্যমে বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে একটি সংস্কৃতি প্রিয় জাতি হিসাবে উপস্থাপন করেছেন। 

 

সৌম্য সরকার

 

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ব্যাটিং লাইন আপের অন্যতম মূল ভরসা সৌম্য সরকার জন্ম গ্রহণ করেন সাতক্ষীরা জেলায়। ২০১৪ সালে রঙিন জার্সিতে তার অভিষেক ঘটে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। পরবর্তীতে ২০১৫ সালে পাকিস্তানের সাথে তার প্রথম টেস্ট অভিষেক ঘটে। 

 

মোস্তাফিজুর রহমান

 

বাংলার বিস্ময় বালক মুস্তাফিজুর রহমান ১৯৯৮ সালের জন্মগ্রহণ করেন সাতক্ষীরা জেলায়। ২০১৬ সালে ভারতের বিপক্ষে অভিষেক ম্যাচে তিনি পাঁচ উইকেট শিকারের মাধ্যমে আলোচনায় আসেন। ঠিক তারপরের ম্যাচে তিনি একাই ছয় উইকেট স্বীকার করেন, যার ফলে বাংলাদেশ ভারতকে ২০০ রানের ভেতরে আটকে দেয়। মুস্তাফিজুর রহমানের অসাধারণ বলিং দক্ষতার কারণে তিনি সমগ্র বিশ্বব্যাপী বিখ্যাত।  তিনি বাংলাদেশের পক্ষ থেকে তৃতীয় ক্রিকেটার যিনি বিশ্বের সবচেয়ে বড় ফ্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্ট আইপিএলে অংশগ্রহণ করেন। ২০১৬ সালের আইপিএল আসরে তিনি সানরাইজ হায়দ্রাবাদের হয়ে খেলেন। বলাই বাহুল্য সেই বছর সানরাইজ হায়দ্রাবাদের শিরোপা আলোচনার পেছনে মুস্তাফিজুর রহমানের অসামান্য অবদান ছিল। 

 

আমাদের আজকের আর্টিকেলের মূল প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল সাতক্ষীরা জেলা কিসের জন্য বিখ্যাত সে সম্পর্কে । আসা করি এই সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা পেয়ে গেছেন। সাতক্ষীরার অসাধারণ বৈশিষ্ট্য নিয়ে অত্র জেলার। এছাড়া সাতক্ষীরা বাংলাদেশের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি জেলা। আসা করি আজকে আর্টিকেলটি আপনাদের উপকারে এসেছে। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।