বুধবার, জুন ১৯, ২০২৪
spot_img

শ্রীমঙ্গলে নাগা মরিচের বাণিজ্যিক চাষ: যাচ্ছে যুক্তরাজ্যেও

‘নাগা মরিচ’। পৃথিবীর সবচেয়ে ঝালযুক্ত মরিচ। নাগা মরিচ হচ্ছে মরিচের একটি প্রজাতি। যা প্রচ- ঝালের জন্য সর্বাধিক পরিচিত। ২০০৭ সালে গিনেজ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস নাগা মরিচকে পৃথিবীর সবচেয়ে ঝাল মরিচ হিসেবে স্বীকৃতি দেয়। বাংলাদেশে এই মরিচকে বিভিন্ন নামে ডাকা হয়। সিলেট অঞ্চলে একে নাগা মরিচ, ঢাকাসহ অন্যান্য জেলায় একে বোম্বাই মরিচ ও ফোটকা মরিচও বলা হয়ে থাকে।

মুলত সুগন্ধ ও স্বাদের জন্যই নাগা মরিচের এত কদর। এর ইংরেজি নাম কোবরা চিলি আর বৈজ্ঞানিক নাম ক্যাপসিকাম চিনেনসি। সিলেট অঞ্চলে উৎপাদিত এই নাগা মরিচ এখন যুক্তরাজ্যেও যাচ্ছে।

নাগা মরিচের অনন্য ঘ্রান ও তীব্র ঝালের জন্য সমাদৃত। কাঁচা সবুজ পুষ্ট নাগা মরিচ ঝালের জন্য খাবারের সাথে খাওয়া হয়। নানা ধরনের ঝাল খাবার যেমন মুড়ি, ফুসকা ইত্যাদি তৈরি করতে এবং পরিবেশন করতে কুচি কুচি করে কেটে ব্যবহার করা হয়। আচার তৈরিতেও এ মরিচ ব্যবহার করা হয়। নাগা মরিচের আচারের বিশেষ চাহিদা রয়েছে সিলেট অঞ্চলে।

বর্তমানে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলায় এই ফসলটি অধিক পরিমাণে উৎপাদন করা হচ্ছে। চলতি মৌসুমে এ অঞ্চলের চাষিরা অন্য ফসলের পাশাপাশি ব্যস্ত রয়েছে নাগামরিচ চাষে। ফসলটি লাভজনক হওয়ায় অনেক চাষি এখন নাগামরিচের চাষ করছেন।

এই মরিচ বাণিজ্যিকভাবে এখন চাষ করা হয় শ্রীমঙ্গল উপজেলাজুড়ে। ফলে শ্রীমঙ্গলের বিভিন্ন এলাকার চাষিরা নাগামরিচ চাষে হয়ে উঠেছেন আগ্রহী। উপজেলার দিলবরনগর, মোহাজেরাবাদ, বিষামনি, রাধানগর, হুসনাবাদ,জাম্বুরাছড়া, শিশিলবাড়ি এবং ডলুছড়া এলাকা ঘুরে দেখা যায় কৃষকরা এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন নাগা মরিচ চাষে।

রাধানগর এলাকার কাজী সামছুল হক এবার ১২০০ শতক জমিতে নাগামরিচ চাষ করেছেন। তিনি বলেন, এ পর্যন্ত আমার ১২০০ শতক জমিতে নাগা মরিচ চাষ করতে প্রায় ৩ লাখ টাকা খরচ হয়েছে। তিনি বলেন, আবহাওয়াসহ সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে তিনি এখান থেকে ২০/২২ লাখ টাকা আয় করতে পারবেন।

শ্রীমঙ্গল উপজেলা কৃষি অধিদপ্তরের কৃষি সম্প্রসারন কর্মকর্তা উজ্জ্বল সূত্রধর জানান, শ্রীমঙ্গলে বিশেষত লেবু বাগান গুলিতে সাথী ফসল হিসেবে কৃষকরা নাগা মরিচ চাষ করে কয়েক লক্ষ টাকা পর্যন্ত আয় করছেন। নাগা মরিচ অম্লীয় মাটিতে খুব ভালো হয় সেজন্য শ্রীমঙ্গল নাগা মরিচ চাষের জন্য খুবই উপযোগী। এছাড়া নাগা মরিচ চাষে খরচও কম। তেমন পরিচর্যারও দরকার পড়ে না। নাগা মরিচ চাষে আগ্রহী কৃষকদের আমরা প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছি। তিনি বলেন, শীত ও গ্রীষ্মকাল নাগা মরিচের চাষের জন্য খুবই উপযোগী। হেক্টর প্রতি নাগা মরিচের গড় উৎপাদন ৩ টন।

জেলা কৃষি অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. সামছুদ্দিন আহমেদ জানান, শ্রীমঙ্গলে ৯৫ হেক্টর জমিতে নাগা মরিচের চাষ হচ্ছে। তিনি বলেন, সরকারিভাবে নাগা মরিচের কোন প্রকল্প গ্রহণ না করায় আমরা নাগা মরিচ চাষীদের পাশে সেইভাবে দাড়াতে পারছি না। তবে যতটা সম্ভব আমরা কৃষকদের সহযোগিতা করে যাচ্ছি এবং পরামর্শ দিচ্ছি।

আরো খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -spot_img

সর্বশেষ