শুক্রবার, জুন ১৪, ২০২৪
spot_img

‘এটি একটি হরর সিনেমার মতো ছিল’

ডেস্ক রিপোর্ট

নুসিরাত শরণার্থী শিবিরে ইসরাইলি হামলা একটা হরর সিনেমার মতো ছিল মন্তব্য করে এক চিকিৎসক বলেছেন, ইসরাইলের নুসিরাত হামলাটি একটি বাজার এবং আল-আওদা মসজিদের কাছে করা হয়।

রোববার কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, নুসিরাত শরণার্থী শিবিরে ইসরাইলি হামলার প্রত্যক্ষদর্শী ওই প্যারামেডিক বলেন যে- ‘এটি হরর সিনেমার মতো, তবে এটি একটি সত্যিকারের গণহত্যা ছিল।’

৪৫ বছর বয়সী জিয়াদ নামের ওই প্যারামেডিক বলেন, ‘ইসরাইলি ড্রোন ও যুদ্ধবিমান সারা রাত এলোমেলোভাবে গুলি চালিয়েছে মানুষের বাড়িতে এবং যারা এলাকা ছেড়ে পালানোর চেষ্টা করেছিল তাদের লক্ষ্য করে।

তিনি বলেন, চারজনকে মুক্ত করতে ইসরাইল দুই শতাধিক নিরীহ বেসামরিক মানুষকে হত্যা করেছে।

জিয়াদ ও অন্যান্য বাসিন্দারা জানিয়েছেন, হামলার পর বাজার এলাকার আশপাশসহ রাস্তায় এখনো অনেক লাশ পড়ে আছে।

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকার নুসেইরাত শরণার্থী শিবিরে ব্যাপক হামলা চালিয়ে অন্তত ২১০ ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে ইসরাইলি বাহিনী। আহত হয়েছেন চার শতাধিক।

গাজার সরকারি মিডিয়া অফিস নিজেদের অফিসিয়াল এক্স অ্যাকাউন্টে এক বিবৃতিতে এই তথ্য জানিয়েছে। আহতদের শরণার্থী ক্যাম্পটির আল আওদা এবং দেইর এল-বালাহর আল-আকসা হাসপাতালে নেয়া হয়েছে বলেও জানিয়েছে গাজার মিডিয়া অফিস।

উল্লেখ্য, ফিলিস্তিনী সংগঠন হামাস গত বছরের ৭ অক্টোবর ইসরাইলে আকস্মিক বড়ো ধরনের হামলা চালায়। এ সময়ে তারা প্রায় এক হাজার ১৭০ ইসরাইলিকে হত্যা এবং ২৫০ জনকে বন্দী করে। এখনো হামাসের কাছে ১২১ জন বন্দী হিসেবে আটক রয়েছে।

এদিকে ৭ অক্টোবর ইসরাইল গাজায় প্রতিশোধমূলক পাল্টা হামলা শুরু করে যা এখনো চলছে। গাজায় ইসরাইলের অব্যাহত এ হামলায় ৩৬ হাজার ৮০১ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। এদের অধিকাংশ নারী ও শিশু।
সূত্র : আল-জাজিরা

আরো খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -spot_img

সর্বশেষ